তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৭ ডিসেম্বর ২০১৯

ভিডিও কনফারেন্স

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কিত

 

মহাপরিচালক, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসন, ব্রাহ্মণবাড়িয়াএবং উপজেলা প্রশাসন, নাসিরনগর এর মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কিত একটি ভিডিও কনফারেন্স আজ সকাল ১১:০০ ঘটিকায় আইসিটি অধিদপ্তরের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচলক জনাব এ. বি. এম. আরশাদ হোসেন (অতিরিক্ত সচিব) বলেন যে, তথ্যপ্রযুক্তির আধুনিকতা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি আজ আমাদের জীবনের অনুষঙ্গ। সাইবার স্পেসে সত্য-মিথ্যা যাচাই না করে অনেকেই তথ্য আপলোড বা শেয়ার করে সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থায় এর বিরুপ প্রভাব বিস্তার করছে। তাই সকল পর্যায়ে বিশেষকরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ও সাধারন জনগনের মাঝে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যবহার সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি করা প্রয়োজন।

 

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচলক জনাব মোঃ রেজাউল মাকছুদ জাহেদী (যুগ্মসচিব) বলেন যে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্থাপিত শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের মাধ্যমেও সচেতনতা সৃষ্টি করা যেতে পারে। জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসন এতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি মনে করেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) জানান যে, সরকারের নির্দেশনামতে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ইতিবাচক ও নেতিবাচক ব্যবহার সম্পর্কিত সচেতনতামূলক কার্যক্রম গ্রহণ করবে। 

 


Share with :

Facebook Facebook